1. nongartv@gmail.com : Nongartv :
  2. suhagranalive@gmail.com : Suhag Rana : Suhag Rana
শুক্রবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৭:০৭ অপরাহ্ন

সিলেট জেলা ও মহানগর বিএনপির গণতন্ত্র হত্যা দিবস পালন

Reporter Name
  • আপডেটের সময় বুধবার, ৩০ ডিসেম্বর, ২০২০

সিলেট জেলা ও মহানগর বিএনপি নেতৃবৃন্দ বলেছেন, ২০১৮ সালের ৩০ ডিসেম্বরের মধ্যরাতের জঘন্য ভোট ডাকাতির জন্য আওয়ামী বাকশালীদের জাতি কখনো ক্ষমা করবে না। ১/১১ এর ফখর-মঈন সরকারের সাথে আঁতাত করে আওয়ামী লীগ ক্ষমতাসীন হয়ে জাতির ঘাড়ে জগদ্দল পাথরের ন্যায় চেপে বসেছে। তারা গণতন্ত্রকে পুরোপুরি ধ্বংস করে দিয়েছিল। আদর্শিক মোকাবেলায় ব্যর্থ হয়ে বিএনপিকে হামলা-মামলায় জর্জরিত করে একদলীয় বাকশালী শাসন করেছে। আওয়ামী দুঃশাসনে বিধ্বস্ত গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়াকে বাঁচিয়ে রাখতে বিএনপি ২০১৮ সালের জাতীয় সংসদে নির্বাচনে অংশ নেয়। কিন্তু সরকার ভোটের একদিন আগেই মধ্যরাতে ব্যালট বাক্স ভরে রাখে। দিনের বেলায় কাউকে আর ভোটকেন্দ্রে গিয়ে ভোট দিতে হয়নি। এমন ভোট ডাকাতির জন্য আওয়ামী বাকশালীদের একদিন জনতার আদালতে বিচারের কাঠগড়ায় দাঁড়াতে হবে।

বুধবার (৩০ ডিসেম্বর) গণতন্ত্র হত্যা দিবস উপলক্ষে সিলেট জেলা ও মহানগর বিএনপি আয়োজিত আলোচনা সভায় বক্তারা উপরোক্ত কথা বলেন।

সিলেট মহানগর বিএনপির সভাপতি নাসিম হোসাইনের সভাপতিত্বে নগরীর কেন্দ্রীয় মুসলিম সাহিত্য সংসদের শহীদ সুলেমান হলে অনুষ্ঠিত সভায় জেলা ও মহানগর বিএনপি অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের বিভিন্ন পর্যায়ের বিপুল সংখ্যক নেতাকর্মী উপস্থিত ছিলেন।

জেলা বিএনপির আহ্বায়ক কমিটির সদস্য মাহবুবুর রব চৌধুরী ফয়সলের পরিচালনায় অনুষ্ঠিত সভায় বক্তব্য রাখেন, সিলেট জেলা বিএনপির আহ্বায়ক কামরুল হুদা জায়গীরদার, মহানগর সিনিয়র সহ-সভাপতি আব্দুল কাইয়ুম জালালী পংকী, ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক আজমল বখত চৌধুরী সাদেক, সহ-সভাপতি এডভোকেট হাবিবুর রহমান, হুমায়ুন কবির শাহীন, কাউন্সিলার রেজাউল হাসান কয়েস লোদী, অধ্যাপিকা সামিয়া বেগম চৌধুরী, ডা. নাজমুল ইসলাম, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এমদাদ হোসেন চৌধুরী, হুমায়ুন আহমদ মাসুক, সাংগঠনিক সম্পাদক মিফতাহ সিদ্দিকী, জেলা আহ্বায়ক কমিটির সদস্য আব্দুল আহাদ খান জামাল, মহানগর সাংগঠনিক সম্পাদক মাহবুব চৌধুরী, জেলা আহ্বায়ক কমিটির সদস্য আবুল কাশেম, মহানগর সাংগঠনিক সম্পাদক মুকুল আহমদ মোর্শেদ, জেলার সাবেক ধর্ম সম্পাদক আল মামুন খান, মহানগর স্বাস্থ্য সম্পাদক লল্লিক আহমদ চৌধুরী, ছাত্র বিষয়ক সম্পাদক শাকিল মোর্শেদ, জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের যুগ্ম আহ্বায়ক আব্দুল ওয়াহিদ সুহেল, জেলা বিএনপির সাবেক সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক বজলুর রহমান ফয়েজ, মহানগর মহিলা দলের সাধারণ সম্পাদিকা নিগার সুলতানা ডেইজী, জেলা ছাত্রদলের সভাপতি আলতাফ হোসেন সুমন, মহানগর সাংগঠনিক সম্পাদক রুবেল ইসলাম ও জেলার যুগ্ম সম্পাদক দুলাল রেজা প্রমুখ। শুরুতে কুরআন থেকে তেলাওয়াত করেন মহানগর বিএনপির স্বাস্থ্য সম্পাদক ডা. আশরাফ আলী।

সভাপতির বক্তব্যে নাসিম হোসাইন বলেন, ইতিহাস স্বাক্ষী আওয়ামী লীগ ও গণতন্ত্র একসাথে চলেনা। ষড়যন্ত্রমুলক মামলায় সাজা দিয়ে সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে কারাগারে আটকে রেখে নির্বাচনের নামে প্রহসন চালানো হয়েছে। বিশ্বের কাছে আওয়ামী নির্বাচনের নমুনা উন্মোচিত হয়েছে। মধ্যরাতে বিশ্বের কোথাও নির্বাচন না হলেও সেই রেকর্ড আওয়ামী সরকার করতে পেরেছে। এর জন্য আওয়ামী লীগের বিচার হবেই হবে।

কামরুল হুদা জায়গীরদার বলেন, ষড়যন্ত্রমুলক মামলায় বেগম খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে সাজা প্রদান করা হয়। তারেক রহমানের বিরুদ্ধেও সাজা প্রদান করা হয়েছে। সরকারের সকল ষড়যন্ত্র উপেক্ষা করেই বিএনপি ঐক্যফ্রন্ট নির্বাচনে অংশ নেয়। জাতির প্রত্যাশা ছিল আওয়ামী লীগ ভোট ডাকাতির ইতিহাস থেকে ফিরে আসবে। কিন্তু আওয়ামী লীগ তাদের নগ্ন বাকশালী চরিত্রের বহিঃপ্রকাশ ঘটিয়ে দিনের ভোট ডাকাতির পরিবর্তে মধ্য রাতে ভোট ডাকাতি করেছে। এই ভোট ডাকাতির জন্য আওয়ামী লীগকে জাতি কোনদিন ক্ষমা করবে না।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category

© 2020 Nongartv.com . Design & Development by PAPRHI
Theme Customization By Freelancer Zone
shares